শূন্য খালি…

মাথার ভেতরে আমার বিশাল
একটা আকাশ আছে ।
আমি’ই তা খুলতে পারেনা । 
মনের ভেতর গভীর সাগর ।
আমি এখন আর স্বীকার’ই করেনা !
কালো কলিজা’টা বিরাট চুম্বক । 
মাস্টার ওস্তাদজীরা কোনদিন
নিজের দিকে টানতে শেখায় না । 

আকাশ খোলা হেলান দেওয়া,
গভীর জলে ডুইব্বা যাওয়া,
মনে মনে আকর্ষণে !  লাগবেনা তার,
বরং, আজ আমি যা পারি তা
গিলতে গিলতে সব খাওয়া ।। 
মাটিতে-মাটিতে যুদ্ধ করার এবং জেতার
বুদ্ধি করছি…. মাঝে মাঝে এ দ্বন্দ্ব মোছার
ডাস্টার খোঁজার ভানে, আর না পাওয়া !

নিজেই নিজের হজম শেষে । 
শূণ্য খালি সবই হাওয়া… 

ঠিক নাকি ঠিক ?

ঃ কি ! ঠিক বলছি নাকি সত্য কইছি ?
ঃ জী সত্য কইছেন…
ঃ কথাডা তাইলে ঠিক বলি নাই ?
ঃ অবশ্যই ঠিক বলছেন…
ঃ তারমানে সত্য কইনাই ?
ঃ ভুল হয়া গেছে ! মিথ্যা বলছি…


ঃ এইবার তুমি সত্যি বললা !

তবে বিশ্বাস কর…

মনে চায়, রবি ঠাকুর – কবি নজরুল অথবা,
নির্মলেন্দু গুন সাহেব’দের থেকেও
সুন্দর – ভাল – মন জুড়ানো কিছু কথা তোমায়
এক্ষুনি অনেক অনেক লেখি !
পারিনা হায় ! তবে বিশ্বাস কর,
তাঁদের বলা কথার থেকেও অনেক ভাল
আর সুন্দর করে ভালবাসার স্বপ্ন আমি,
তোমাকে – আমাকে নিয়ে দেখি…

আম্পান

এই বাতাস শইলে আরাম ঠান্ডা পরশ দেয়নাতো, বরং মনে ভয়ংকর শীতল কাপুনি দেয়রে ! ওহে… ! সকল কিছুর… সৃষ্টিকর্তা… !

যারা আসল বিপদে আছে, কমুক তাদের বিপদ কমুক ।।

‘সুন্দরবনের মর্ম আমাদের মহান ( ! ) জ্ঞানের অধিকারী, প্রচুর জানা, জানোয়ার জান্তা’গুলা, জ্ঞান পকেটে ভরার ভয়াল পরিনাম একটু বুঝুক । সময় থাকতে থাকতে’ই… বুঝুক !

সৃষ্টির সেরা জীব নামক প্রাণী’কে সৃষ্টিকর্তা তার’ই দেওয়া ঘুমন্ত মগজটা’কে জাগ্রত করুক ।।

.
.

সজাগ হোক চিন্তা সবার,
নিদ্রা করুক মনের
এতদিন জেগে থাকা,
খুব’ই ক্লান্ত এখন । এক
একটা সুপ্ত জানোয়ার ।।

‘আমার’-তোর-তোমার-আপনার-সব্বার…